ঢাকা,বুধবার,৪ কার্তিক ১৪২৮,২০,অক্টোবর,২০২১
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * টি‌সি‌বির বিক্রয় শুরু, চলবে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত   * রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে সৃষ্ট অনিশ্চয়তায় প্রধানমন্ত্রীর উদ্বেগ প্রকাশ   * ডিএমপির ৪ থানার ওসিকে বদলি   * শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল টাইগাররা   * জলবায়ু ঝুঁকির হাত থেকে বাঁচাতে কমনওয়েলথকে অগ্রণী ভূমিকার আহ্বান   * আরও ২৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১,৪৪১ জন   * বাংলাদেশিদের জন্য ইসরাইল ভ্রমণ বন্ধই থাকবে: তথ্যমন্ত্রী   * করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন ওবায়দুল কাদের   * ফিলিস্তিনের যুদ্ধাহতদের জন্য ওষুধ পাঠাবে বিএনপি   * ১৫ শতাংশ সারচার্জ মওকুফ: মেয়র আতিক  

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
করোনা আতঙ্কে ফেসবুকের অফিস বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক :

করোনা ভাইরাসের বিস্তার থেকে রক্ষা পেতে নানা বিধি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বিশ্বজুড়ে। তবে এবার লন্ডনের তিনটি অফিস বন্ধ ঘোষণা করেছে ফেসবুক। রবিবার বিষয়টি জানিয়েছে লন্ডন ভিত্তিক গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি লন্ডনে ফেসবুকের এক কর্মীর শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত ওই ব্যক্তি সিঙ্গাপুর থেকে লন্ডনের অফিসে আসেন। তার পরই লন্ডনে ফেসবুকের তিনটি অফিসই বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। কারণ ফেসবুকের অফিসেও করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের দাবি, ওই আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে আর কোন কর্মী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কিনা তা জানে না ফেসবুক। তাই আপাতত অফিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। তবে এই সময়ের মধ্যে ফেসবুকের এসব অফিস খুব ভালভাবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার কাজ করা হবে বলেও জানানো হয়।

জানা যায়, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি সিঙ্গাপুরের অফিসের একজন কর্মী ছিলেন। গত২৪ থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তিনি একাধিকবার কাজের প্রয়োজনে ফেসবুকের লন্ডন অফিসে যাওয়া আসা করেছেন। তার শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি জানার পরই লন্ডনের তিনটি অফিসই আপাতত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। লন্ডনের ফেসবুকের তিনটি অফিসে অন্তত তিন হাজার কর্মী কাজ করেন। তাদের এখন থেকে বাসায় বসে অফিসের কাজ করতে বলা হয়েছে।

লন্ডনে এখনও পর্যন্ত প্রায় ১৫০ জনের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত কয়েক দিনে লন্ডনে নতুন করে ৪৭ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। 

করোনা আতঙ্কে ফেসবুকের অফিস বন্ধ
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

করোনা ভাইরাসের বিস্তার থেকে রক্ষা পেতে নানা বিধি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বিশ্বজুড়ে। তবে এবার লন্ডনের তিনটি অফিস বন্ধ ঘোষণা করেছে ফেসবুক। রবিবার বিষয়টি জানিয়েছে লন্ডন ভিত্তিক গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি লন্ডনে ফেসবুকের এক কর্মীর শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত ওই ব্যক্তি সিঙ্গাপুর থেকে লন্ডনের অফিসে আসেন। তার পরই লন্ডনে ফেসবুকের তিনটি অফিসই বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। কারণ ফেসবুকের অফিসেও করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের দাবি, ওই আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে আর কোন কর্মী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কিনা তা জানে না ফেসবুক। তাই আপাতত অফিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। তবে এই সময়ের মধ্যে ফেসবুকের এসব অফিস খুব ভালভাবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার কাজ করা হবে বলেও জানানো হয়।

জানা যায়, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি সিঙ্গাপুরের অফিসের একজন কর্মী ছিলেন। গত২৪ থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তিনি একাধিকবার কাজের প্রয়োজনে ফেসবুকের লন্ডন অফিসে যাওয়া আসা করেছেন। তার শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি জানার পরই লন্ডনের তিনটি অফিসই আপাতত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। লন্ডনের ফেসবুকের তিনটি অফিসে অন্তত তিন হাজার কর্মী কাজ করেন। তাদের এখন থেকে বাসায় বসে অফিসের কাজ করতে বলা হয়েছে।

লন্ডনে এখনও পর্যন্ত প্রায় ১৫০ জনের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত কয়েক দিনে লন্ডনে নতুন করে ৪৭ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। 

বিপদ থেকে বাঁচতে হোয়াটসঅ্যাপে এই ভুলগুলো এড়িয়ে চলুন
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

বর্তমানে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ হল হোয়াটসঅ্যাপ। ফোন নম্বরের মাধ্যমেই আমরা যোগাযোগ রাখতে পারি এই অ্যাপে। কিন্তু প্রত্যেকটি জিনিসেরই ভাল-খারাপ দুটি দিক আছে। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে খুব সহজেই আমরা এক জায়গা থেকে অন্য জায়গার মানুষের সঙ্গে ম্যাসেজে, ভিডিও কল, ছবির আদান-প্রদান ইত্য়াদি হয়ে থাকি। কিন্তু আমাদের নিজস্ব কিছু ভুলের জন্যই আমরা অনেক সময় নানান রকম বিপদে পড়ে যাই। আলোচনা করা যাক ভুলগেলো নিয়ে এবং আর এখনই সতর্ক হয়ে যান এই সব বিষয়ে।

১) আমরা মাঝে মাঝেই আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইল ফোটো পরিবর্তন করে থাকি। কিন্তু আমরা এটা জানি না যে এর থেকে হতে পারে নানান বিপদ। কারণ আমাদের কনট্যাক্ট লিস্টে থাকা প্রত্যেকেই আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইল ফোটো দেখতে পান। এমনকি এর থেকে অনেক রকম তথ্য় পেয়ে যান অনেকে। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার হোয়াটসঅ্যাপে থাকা তিনটি অপশনের (Everyone, My contacts, Nobody) মধ্যে যে কোন একটি ব্যবহার করতে পারেন।

২) আমাদের ফোনের কনট্যাক্ট লিস্ট থেকে কিছু অপ্রাসঙ্গিক নম্বর ডিলিট করে দিতে হবে। যাদের সঙ্গে অনের আগে পরিচয় হলেও এখন আর কোনও যোগাযোগ নেই। এর ফলে বিপদ অনেকটা কম হতে পারে। 

 

৩) হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করার আগে এই অ্যাপের সেটিংসে গিয়ে প্রাইভেসিতে সব কিছু MY contact করে নিন। এর ফলে আপনি এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনার পরিবারের কাউকে বা বন্ধুকে যাই কিছু দেবেন, তা শুধু সেই দেখতে পাবে। অন্য কেউ না।

৪) অনেক সময়ই হয়ে যে আমরা না চাইলেও আমাদের কনট্যাক্ট লিস্টে থাকা কিছু মানুষ হটাৎ করেই কোনও একটি গ্রুপে নিয়ে নেয়। এর জন্য প্রাইভেসিতে থাকা My contacts except ব্যবহার করতে পারেন। এর ফলে যে কেউ চাইলেই আপনাকে গ্রুপে নিতে পারবে না।

৫) প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে `Good morning`-ধরনের কিছু ছবি সহ ম্যাসেজে আসতে থাকে। প্রয়োজনীয় ছবি ছাড়া অন্যান্য কোনও ছবি নিজের ফোনে রাখার প্রয়োজন নেই।

৬) আমরা মাঝে মাঝেই হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট ব্যাকআপ করি। যদি কোনও চ্যাট আপনার প্রয়োজন হয়ে তাহলে সেটি আলাদা ভাবে সেভ করে রাখুন। কারণ, অযথা চ্যাট ব্য়াকআপের ফলে বাড়তে পারে নানান সমস্যা।

গ্রামীণফোনে প্রথম বাংলাদেশি সিইও ইয়াসির আজমান
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে দেশের বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হয়েছেন ইয়াসির আজমান।

গ্রামীণফোনের পরিচালনা পর্ষদের নির্দেশনা অনুযায়ী আগামি ১ ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন এ দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় গ্রামীণফোন। ইয়াসির আজমান বর্তমান সিইও মাইকেল ফোলির স্থলাভিষিক্ত হবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সিইও হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার আগে ইয়াসির আজমান ২০১৫ সালের জুন থেকে গ্রামীণফোনের সিএমও ও ২০১৭ সালের মে থেকে ডেপুটি সিইও এবং সিএমও হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

তারও আগে টেলিনর গ্রুপের বিতরণ ও ই-বিজনেস বিভাগের প্রধান এবং টেলিনরের হয়ে বিভিন্ন দেশে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন গ্রামীণফোনের এই নতুন সিইও।

নতুন দায়িত্ব পাওয়া প্রসঙ্গে ইয়াসির আজমান বলেন, গ্রামীণফোনের সিইও হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণের প্রস্তাব পেয়ে আমি অনেক আনন্দিত এবং সম্মানিত বোধ করছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ, সামাজিক ক্ষমতায়ন এবং আমাদের গ্রাহকদের জন্য যা গুরুত্বপূর্ণ তার সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দিতে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের অপার সম্ভাবনাকে পূর্ণরূপে বিকশিত করতে আমাদের এই সুদূরপ্রসারী লক্ষ্য অত্যন্ত কার্যকর। আমি আমাদের সাতকোটি ৫০ লাখ গ্রাহকের আস্থাকে সম্মান জানাই। আমাদের উদ্ভাবনী প্রযুক্তি আর সেবার মাধ্যমে তাদের আরও উন্নত সেবা দিয়ে যেতে চাই।

প্রসঙ্গত, বর্তমান সিইও মাইকেল ফোলি আফ্রিকায় তার পরিবারের কাছে ফিরে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এতে অপারেটরটির পরিচালনা পর্ষদ আজমানকে তার জায়গায় বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়।

ইন্টারনেটের উচ্চগতি নিশ্চিত করতে হবে
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, সারা দেশকে ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের আওতায় আনলেই হবে না, ইন্টারনেটের উচ্চগতি নিশ্চিত করতে হবে।

রোববার সকালে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানে, ১৪৬টি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে ১০ মেগাবাইট গতিসম্পন্ন নেটওয়ার্ক চালু করে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষার্থীদের দাবি অনুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক চালু করার কাজ শুরু হয়েছে। ফ্রি ওয়াইফাই চালু হওয়া প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১০ এমবিপিএস গতির ব্যান্ডউইথ পাবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এক বছর পর্যন্ত বিনামূল্যে এই ব্যান্ডউইথ পাবে। এরপর শিক্ষা মন্ত্রণালয় অথবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এ ব্যান্ডউইডথের খরচ বহন করবে। তবে শিক্ষার্থীদের জন্য এটি বিনামূল্যেই।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশে সবারই দাবি সব জায়গায় ওয়াইফাই জোন করে দেয়ার। বিশেষ করে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের, সেই কারণেই আমরা এই প্রকল্প হাতে নিয়েছিলাম। ডিজিটাল বাংলাদেশের যাত্রা যখন আরম্ভ করি তখন অনলাইন তো দূরের কথা ইন্টারনেট কানেকশনেরই অভাব ছিল। মাত্র ১ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট অ্যাকসেস পেত, এখন সেটা প্রায় ৬০ শতাংশে চলে এসেছে।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, আমরা গত ১০ বছরে ১০ কোটি মানুষকে অনলাইনে এনেছি। আমাদের তরুণদের যে দাবি সব জায়গা তাদের ওয়াইফাই করে দেয়া, সেটা কিন্তু আমাদের আওয়ামী লীগ সরকার করে যাচ্ছে। এই প্রকল্প হল সেটারই অংশ, সরকারি সব বিশ্ববিদ্যালয়ে টেলিযোগাযোগ বিভাগ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ওয়াইফাই জোন করে দিচ্ছে। এই কাজ চলমান থাকবে। সারাদেশেই আমরা ইন্টারনেট আনছি, ইউনিয়ন পর্যন্ত আমরা ফাইবার নিয়ে যাচ্ছি।

জয় বলেন, আমার স্বপ্ন হচ্ছে দেশের ১৬ কোটি মানুষকেই আমরা অনলাইনে আনব। এটা হচ্ছে আমাদের ওয়াদা।

২০১৮ সালে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের উদ্যোগে ‘ইন্সটলেশন অব অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল নেটওয়ার্ক অ্যাট গভর্মেন্ট কলেজ, ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড ট্রেইনিং ইন্সটিটিউট’ শীর্ষক এই প্রকল্পটি নেয়া হয়। এটি বাস্তবায়ন করছে বিটিসিএল। প্রকল্পের আওতায় সারাদেশে ৫৮৭ সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও ট্রেনিং ইন্সটিটিউটে বিনামূল্যে উচ্চগতির ওয়াইফাই দেয়া হবে। এ জন্য সরকার খরচ করছে ৪৫ কোটি টাকা।এরমধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৪৩টি, ময়মনসিংহে ৩৫টি, চট্রগ্রামে ১০৭, বরিশালে ৪৫, খুলনায় ৮৩, রাজশাহীতে ৮৫, রংপুরে ৫৬ এবং সিলেটে বিভাগে ৩৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সবগুলো বিভাগের এসব সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে তিন লটে অপটিক্যাল ক্যাবল ও যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব বেসরকারি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়েও এ সুবিধা সম্প্রসারণ করার কথা রয়েছে।

ফেসবুকের নতুন অ্যাপ, টাকা পাবেন ব্যবহারকারীরাও
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন অ্যাপ এনেছে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসুবক। ভিউপয়েন্টস নামের এই মার্কেট রিসার্চ অ্যাপটি থেকে আয়ও করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

ব্যবহাকারীরা অ্যাপটি দিয়ে ওয়েল বিয়িং (সুস্থতা) সম্পর্কিত জরিপে অংশ নিতে পারবেন। প্রতিবার জরিপে অংশ নিতে ব্যবহারকারীরা ১৫ মিনিট সময় লাগবে। এতে নম্বর পাওয়া যাবে ১০০০। এই পয়েন্টের জন্য ফেইসবুক দেবে ৫ ডলার। এভাবে বছরজুড়ে জরিপে অংশ নিলে পাওয়া যাবে ৬০০ ডলার। পয়েন্ট অর্জনের পরে ব্যবহারকারীরা পেপালের মাধ্যমে পেমেন্ট পাবেন।

অ্যাপটির ব্যবহার করতে হলে নাম, ঠিকানা, দেশ, জন্ম-তারিখ ও লোকেশন দিতে হবে। কোনো থার্ড পার্টি কোম্পানির কাছে এসব তথ্য বিক্রি করা হবে না বলে জানিয়েছে ফেইসবুক।

অ্যাপটি বর্তমানে শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্ম থেকে ডাউনলোড এবং ব্যবহার করতে পারবেন। আগামী বছর থেকে অন্যান্য দেশের এটি চালু করবে ফেসুবক।

ভিউপয়েন্টসের প্রোডাক্ট ম্যানেজার ইরেজ নাভেহ বলেছেন, অ্যাপটির মাধ্যমে নেয়া তথ্য তৃতীয় পক্ষের কাছে বিক্রি করবো না। অনুমতি ছাড়া, ফেসবুক বা অন্য কোথাও প্রকাশ করবো না। যেকোনও সময় অংশগ্রহণ বাতিলও করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

১ মিনিটে নগদ অ্যাকাউন্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন জয়
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

বাংলাদেশের জনগণের জন্য আর্থিক সেবাখাতকে আরও সহজ ও নিরাপদ করতে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন সেবা নগদ কে পরিচয়, অ্যাপ্লিকেশনের সঙ্গে সংযুক্ত করে ১ মিনিটে নগদ অ্যাকাউন্ট, সেবা উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। মঙ্গলবার সকালে সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে এক অনুষ্ঠানে এই সেবার উদ্বোধন করেন তিনি।

এর আগে, যেকোনো মোবাইল একাউন্টের জাতীয় পরিচয় পত্র শনাক্ত করতে ৫ দিন সময় লাগতো। পরিচয় এপ্লিকেশনের মাধ্যমে এখন তথ্য যাচাই বাছাই করতে সময় লাগে মাত্র এক মিনিট।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশ্ব ডাক দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাক টিকেট, টেলিটকের উদ্যোগে আর্কাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তরের আইএসবিএন ও বারকোড সেবা ও ওয়েবভিত্তিক অনলাইনকরণ, টেলিটকের টেলি-পে সেবা এবং টেসিস এর নতুন পণ্য ল্যাপটপ ও মোবাইল উদ্বোধন করেছেন সজীব ওয়াজেদ জয়।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, নগদের এমডি তানভীর মিশুকসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জাকারবার্গের পোস্টে বাংলাদেশের বিজ্ঞানীদের সাফল্যের খবর
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

বাংলাদেশের বিজ্ঞানীদের এক আবিষ্কারের খবর জানিয়েছেন ফেইসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ। ফেইসবুক পোস্টে তিনি মেনিনজাইটিস নামের স্নায়ুরোগের প্রাদুর্ভাব বিষয়ে সাফল্যের খবর জানিয়েছেন। তার দাতব্য প্রতিষ্ঠান চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ ও বায়োহাবের তৈরি একটি টুল ব্যবহারের প্রশংসা করেছেন পোস্টে। বাংলাদেশের বিজ্ঞানীরা মেনিনজাইটিসের প্রাদুর্ভাবের কারণ খুঁজে বের করতে ‘আইডিসেক’ নামের একটি টুল ব্যবহার করেছেন বলে জানান জাকারবার্গ, যা তৈরি করেছে তারই প্রতিষ্ঠান চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ ও বায়োহাব। 
ফেইসবুক পোস্টে জাকারবার্গ জানান, আইডিসেক বা ইনফেকটিয়াস ডিজিজ সিকোয়েন্সার একটি ওপেন সোর্স ও ক্লাউডভিত্তিক টুল যা  যে কোনো ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ব্যবহার করতে পারেন। এ টুল ব্যবহার করে শিশুদের রোগ প্রতিরোধের বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব বলে জানান তিনি। এ টুল তৈরিতে সহায়তা করার জন্য জাকারবার্গ গেটস ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান তার পোস্টে। একই সঙ্গে তিনি এটি নিয়ে তৈরি একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন তার পোস্টে। তার পোস্টে প্রায় ২৭ হাজার প্রতিক্রিয়া, প্রায় তিন হাজার কমেন্ট ও প্রায় তিন হাজার শেয়ার হয়েছে। এছাড়া ভিডিওটি তিনটি মোডে পোস্ট করা হয়েছে বায়োহাবে। যেখান থেকে ওই ভিডিও ডকুমেন্ট্রি দেখা যাবে।

গ্রাহকদের কাছে ক্ষমা চাইল ফেসবুক
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

বিশ্বজুড়ে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারে সমস্যা হওয়ায় গ্রাহকদের কাছে ক্ষমা চেয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। বুধবার এক বার্তায় ক্ষমা চায় সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি।

 

ফেসবুক বলে, ‘ফেসবুকে ছবি ও ভিডিও আপলোড, এবং এগুলো পাঠাতে সমস্যা হচ্ছে। আমাদের নজরে এসেছে বিষয়টি। এজন্য আমরা ক্ষমা চাচ্ছি। আমরা সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাচ্ছি। দ্রুতই স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে ফেসবুক।’

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট ভার্জের খবরে বলা হয়, বুধবার সমস্যা দেখা দিলেও ফেসবুক জানায়নি আসলে কেন এমনটি হয়েছে। তবে আইটি বিশেষজ্ঞরা প্রাথমিকভাবে মনে করছেন কারিগরি ত্রুটির কারণে এই বিভ্রাট হয়েছে।

 

ডেইলি মেইল বলছে, সার্বিক ব্যাপারে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি। ফেসবুক কর্তৃপক্ষও এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কিছু জানায়নি।

 

বুধবার দুপুরের পর থেকে সমস্যার সৃষ্টি হয়। ফেসবুকের পাশাপাশি ছবি শেয়ারিংয়ের জনপ্রিয় অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম এবং হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারেও সমস্যায় পড়তে হয় ব্যবহারকারীদের। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ইউরোপের দেশগুলোতে এই বিভ্রাট সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে।

 

বাংলাদেশে বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে ফেসবুকে ঢোকা গেলেও গতি ছিল খুবই কম। রাত ৮টা ৪৯ মিনিট থেকে বাংলাদেশে সমস্যা বেশি দেখা দেয়।

 

ক্ষতিগ্রস্ত ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে প্রায় ৩৯ শতাংশ লগইন করার সময় সমস্যার মুখে পড়েন। এদিকে, ছবি আপলোডের সমস্যার মুখে পড়েন ৩৩ শতাংশ ব্যবহারকারী। এ নিয়ে টুইটারে নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন বহু ফেসবুক ব্যবহারকারী।

 

হঠাৎ ফেসবুক সার্ভার ডাউন!
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

হঠাৎ করেই ডাউন হয়ে গেছে জয়প্রিয় সামাজিক যোগাযোগের প্ল্যাটফর্ম ফেসবুক। ফেসবুকের নিউজফিড ও ছবির ব্যবহারে ব্যর্থ হচ্ছেন এর ব্যবহারকারীরা।

বুধবার (৩ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা থেকে আটটার দিক থেকে এ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন ব্যবহারকারীরা।

সাইটটিতে ঢোকার কিছুক্ষণের মধ্যেই সাইটটি ‘ডাউন’ হয়ে যাচ্ছে বলে ব্যবহারকারীদের অভিযোগ। এতে দুর্বিপাকে পড়েছেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা।

জানা যায়, ৩৯ শতাংশ ব্যবহারকারী তাদের ফেসবুক প্রোফাইলে লগইন এবং ৩৩ শতাংশ ব্যবহারকারী ছবি সমস্যায় ভুগছেন। অপরদিকে, ফেসবুক কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে এ ঘটনার দ্রুত সম্ভব সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

তবে এ বিষয়ে ফেসবুক সদর দফতর থেকে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি।

ডিজিটাল লিডারশিপ তৈরির উদ্যোগ
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

ডিজিটাল পার্লামেন্ট বাস্তবায়নে সংসদ সদস্যদের আরও দক্ষ করে তুলতে প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ বছরের জুলাই মাসে সব সংসদ সদস্যের অংশগ্রহণে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ : স্টোরি অব ট্রান্সফরমেশন’ শীর্ষক এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে। কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। ১২ জুন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে ডিজিটাল পার্লামেন্ট প্রকল্পের বিস্তারিত নথি হস্তান্তরকালে এসব বিষয় জানান তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ সময় প্রতিমন্ত্রী এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন নিয়ে স্পিকারের সঙ্গে আলোচনা করেন। প্রতিমন্ত্রী জানান, সংসদ সদস্যদের পাশাপাশি তাদের সাচিবিক সহায়তা প্রদানকারীদেরও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ডিজিটাল লিটারেসিতে দক্ষ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ডিজিটাল পার্লামেন্টের মধ্য দিয়ে ডিজিটাল লিডারশিপ গড়ে উঠবে। ডিজিটাল পার্লামেন্ট বাস্তবায়ন হলে সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে। সংসদ সদস্যরা সার্বক্ষণিক পার্লামেন্ট কার্যক্রমে সংযুক্ত থাকতে পারবেন। এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের মাধ্যমে নিজ এলাকার উন্নয়ন সম্ভাবনা তুলে ধরার পাশাপাশি জনগণের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্কও গড়ে তুলতে পারবেন।
আলোচনা ও নথি হস্তান্তরকালে হুইপ ইকবালুর রহিম, সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমদ খান ও এটুআই প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এবার করের আওতায় আসছে ফেইসবুক-গুগল-অ্যামাজন
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

ফেইসবুকসহ বড় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো নিজেদের করপোরেট কর ফাঁকির উপায় হিসেবে যেসব ফাঁকফোকর ব্যবহার করে তা বন্ধে অভিন্ন নীতিমালা প্রণয়নে সম্মত হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে নিয়ে গঠিত ১৯টি দেশের জোট জি টোয়েন্টির অর্থমন্ত্রীরা।

জাপানের ওসাকায় সমৃদ্ধ অর্থনীতিগুলোর আন্তর্জাতিক এই জোটের অর্থমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরদের বৈঠকের চূড়ান্ত যৌথ ঘোষণার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর দিয়েছে।
কর ফাঁকি দিতে ফেইসবুক, গুগল ও অ্যামাজনসহ বড় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো তাদের পণ্য বা সেবা যে দেশেই বিক্রি করুক না কেন মুনাফার উৎস দেশ হিসেবে সব সময় নিম্ন-করের দেশগুলোকে দেখায় বলে সমালোচনা আছে। এ ধরনের চর্চাকে অনেকেই অনৈতিক হিসেবে দেখেন।
নতুন বিধিমালা বড় বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর উপর যেমন উচ্চ করের বোঝা চাপাবে তেমনি ‘নাম-মাত্র’ কর আরোপের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আয়ারল্যান্ডের মতো দেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ টানাও কঠিন করে তুলবে।
যৌথ ঘোষণায় বলা হয়েছে, “ডিজিটাইজেশন থেকে উদ্ভূত কর ব্যবস্থার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সাম্প্রতিক অগ্রগতিকে আমরা স্বাগত জানাই এবং ‘টু পিলার অ্যাপ্রোচ’ নিয়ে তৈরি উচ্চাভিলাষী কর্মসূচিকে সমর্থন করি।
“২০২০ সাল নাগাদ একটি চূড়ান্ত প্রতিবেদনসহ ঐকমত্যের ভিত্তিতে সমাধানে পৌঁছতে আমরা আমাদের প্রচেষ্টা দ্বিগুণ করব।”
কর ব্যবস্থার পরিবর্তনের বিষয়ে জি টোয়েন্টির বিতর্কের কেন্দ্রে রয়েছে টু পিলার বা দ্বি-স্তম্ভ নীতি, যা কিছু কোম্পানির জন্য উভয় সংকট হিসেবে দেখা দিতে পারে।
প্রথম স্তম্ভ হলো- কোনো দেশে ব্যবসায়িক উপস্থিতি না থাকলেও সেখানে যদি কোম্পানির পণ্য বা সেবা বিক্রি হয় তাহলে সংশ্লিষ্ট দেশ ওই কোম্পানির উপর কর আরোপের অধিকার পাবে।
এরপরও কোম্পানিগুলো নিম্ন করের দেশে মুনাফা সরিয়ে নিতে পারলেও দ্বিতীয় স্তম্ভের অধীনে কোম্পানিগুলোর উপর নূন্যতম কর আরোপ করা যাবে, যার হার পরে ঠিক হবে।
মুনাফা সরিয়ে নিম্ন করের অঞ্চলে নেওয়া কঠিন করতে বড় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর উপর করারোপের পাশাপাশি নূন্যতম করপোরেট কর হার প্রবর্তনের প্রস্তাবের পক্ষে সোচ্চার রয়েছে ব্রিটেন ও ফ্রান্স।
দেশ দুটির সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বেগ প্রকাশ করে বলছে, বৈশ্বিক কর ব্যবস্থা সরকারের বড় উদ্যোগের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্টারনেট কোম্পানিগুলোকে অন্যায়ভাবে লক্ষ্যবস্তু করা হচ্ছে।
বৃহৎ ইন্টারনেট কোম্পানিগুলোর ভাষ্য, তারা করনীতি অনুসরণ করেন। কিন্তু যেটা করেন সেটা হলো- আয়ারল্যান্ড ও লুক্সেমবুর্গের মতো নিম্ন করের দেশকে বিক্রয়ের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করার মধ্য দিয়ে ইউরোপে সামান্য কর পরিশোধ করেন।
সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকার ফেইসবুক ও ইউটিউবের মতো ইন্টারনেট যোগাযোগ মাধ্যমে দেশীয় বিজ্ঞাপনদাতাদের পরিশোধিত অর্থের উপর ১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট আরোপ করেছে।

রোল মডেল হওয়ায় বাংলাদেশকে অনুসরণ করছে বিশ্ব : পলক
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দ্রুত সময়ে বাংলাদেশ বিশ্বের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। রোল মডেল হওয়ায় বাংলাদেশকে অনুসরণ করছে বিশ্বের অনেক দেশ। গতকাল রোববার দুপুরে নাটোরের সিংড়া উপজেলায় হতদরিদ্রদের মাঝে সহায়তা বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী পলক। পরে অগ্নিকা-, সড়ক দুর্ঘটনা, পানিতে ডুবে মারা যাওয়া ও অসুস্থ রোগীদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেন তিনি।

এ সময় বিভিন্ন দুর্ঘটনায় নিহত পাঁচজনের পরিবারের মাঝে ৭০ হাজার টাকা, অগ্নিদগ্ধ একজনকে ১০ হাজার টাকা, অগ্নিকা-ে ক্ষতিগ্রস্ত একজনকে দুই বান্ডিল টিন ও নগদ ছয় হাজার টাকা দেন প্রতিমন্ত্রী পলক।
একই সঙ্গে প্যারালাইজড আক্রান্ত শাহাবুলের মেয়ের লেখাপড়ার খরচ চালানোর জন্য নগদ ছয় হাজার টাকা ও তাড়াই গ্রামের ক্যান্সার আক্রান্ত স্বাধীনকে নগদ ৪ হাজার টাকা ও প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ব্লাড ক্যান্সার আক্রান্ত তন্ময়কে নগদ ৫০ হাজার টাকা দেন প্রতিমন্ত্রী। পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের সান্ত¡না দেন তিনি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, তাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আল আমিন প্রমুখ।

মার্কিন ভিসা পেতে লাগবে ফেসবুকের তথ্যও
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

ভিসা দেওয়ার ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম তৈরি করেছে আমেরিকা। এই নিয়মে বলা হয়েছে, যিনি ভিসার জন্য আবেদন করবেন তাঁকে নিজের ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপসহ সামাজিক মাধ্যমের তথ্যও পেশ করতে হবে। এতে মার্কিন ভিসা পাওয়া আরও কঠিন হয়ে পড়ল বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। বিবিসি।

 

এমনকি গত ৫ বছর ধরে কোন ইমেল আইডি এবং ফোন নম্বর ব্যবহার করছেন তাও জানাতে হবে। বিস্তারিত সোশ্যাল মিডিয়া সম্পর্কে তথ্য জমা দেওয়ার পর মিলবে মার্কিন ভিসা।

এই পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্বজুড়ে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। অনেকেই নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে তথ্য জানাতে চান না। কারণ হ্যাক হওয়ার ভয়ে এবং গোপনীয়তা বজায় থাকবে না মনে করে। সেখানে এই নতুন নিয়ম বিতর্কের সৃষ্টি করেছে।

তবে কূটনীতিকদের ক্ষেত্রে এবং অফিসিয়াল কাজে যাঁরা আসবেন তাঁদেরকে এই নিয়মের বাইরে রাখা হয়েছে। কিন্তু যাঁরা আমেরিকা ঘুরতে আসবেন বা কাজের জন্য এবং উচ্চশিক্ষার জন্য আসবেন তাঁদেরকে এই তথ্য দিয়েই আসতে হবে। কেউ যদি মিথ্যে তথ্য দিয়ে ধরা পড়ে তাহলে কঠিন শাস্তির মুখে পড়তে হবে।

আমেরিকার এই দপ্তর জানিয়েছে, ‘আমরা ক্রমাগত কাজ করে যাচ্ছি বাছাই করার পদ্ধতির উন্নতির জন্য। যাতে মার্কিন নাগরিকদের সুরক্ষা আরও ভালভাবে দেওয়া যায়।’

দেশে শিগগিরই চালু হবে ৫-জি প্রযুক্তি
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

শিগগিরই দেশে ৫-জি প্রযুক্তির মোবাইল নেটওয়ার্ক চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার (১৭ মে) ‘ওয়ার্ল্ড টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সোসাইটি ডে’ উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে তিনি একথা বলেন।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, সরকার তথ্য-প্রযুক্তিবান্ধব নীতি প্রণয়ন করেছে। দেশের ৯৯ ভাগ এলাকা এখন মোবাইল নেটওয়ার্কের আওতায় এসেছে। অচিরেই দেশে ৫-জি প্রযুক্তির মোবাইল নেটওয়ার্ক চালু করা হবে। আমরা ইতোমধ্যে বাংলাদেশের নিজস্ব স্যাটেলাইট ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট’ এর সেবা ব্যবহার করতে শুরু করেছি।

‘ওয়ার্ল্ড টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সোসাইটি ডে’-র এবারের প্রতিপাদ্য ‘ব্রিজিং দ্য স্টান্ডার্ডাইজেশন গ্যাপ’ অত্যন্ত সময়োপযোগী হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে দেশব্যাপী তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে বিরাট জাগরণ তৈরি হয়েছে, যার সুফল বাংলাদেশ ব্যাপকভাবে পেতে শুরু করেছে।’

তিনি বলেন, ‘গত দশ বছরে আওয়ামী লীগ সরকার টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তির সুফল দেশের প্রতিটি প্রান্তে পৌঁছে দিতে যোগাযোগ প্রযুক্তির অবকাঠামো উন্নয়ন, প্রায়োগিক উৎকর্ষ সাধন, প্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার নিশ্চিত করাসহ এ খাতে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে। ইন্টারনেট ডেনসিটি বৃদ্ধি, সাবমেরিন ক্যাবলের সক্ষমতা বৃদ্ধি, নতুন সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপনসহ টেলিযোগাযোগ খাতের সকল সেবা আধুনিক ও যুগোপযোগী করা হয়েছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ইউনিয়ন পর্যায়ে অপটিক্যাল ফাইবার সংযোগ, প্রায় সকল উপজেলায় অপটিক্যাল ফাইবার কানেকটিভিটি, সকল জেলায় তথ্য বাতায়ন এবং প্রতিটি ইউনিয়নে ইউনিয়ন তথ্য ও সেবাকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আমাদের নানাবিধ উদ্যোগের ফলে সরকারি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া সম্ভব হয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর স্বপ্ন নয়, একটি বাস্তবতা।’

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করে তিনি বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও ১৭ মে ‘ওয়ার্ল্ড টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সোসাইটি ডে’ পালন করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত।

সারাদেশে ঈদের পরে ইন্টারনেট মেলা
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

সারাদেশে ইন্টারনেট ছড়িয়ে দিয়ে এই খাত থেকে সুফল পেতে আয়োজন করা হচ্ছে জাতীয় ইন্টারনেট মেলা। আগামি মাসে ঈদের পরে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভাগীয় শহরে ইন্টারনেট মেলা আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দেশের ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবি এই মেলা আয়োজন করছে। এতে সব ধরনের সহযোগিতা দেবে সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ।

প্রসঙ্গত, এর আগেও দেশে একবার ইন্টারনেট মেলা হয়েছিল। সেই মেলার আয়োজক ছিল সফটওয়্যার ও সেবা পণ্যের নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন বেসিস। এবার ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর হাতে ফিরে এলো ইন্টারনেট মেলা।
জানা গেছে, ইন্টারনেট মেলা হলেও এতে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো অংশ নেওয়ায় বাদ যাচ্ছে মোবাইল অপারেটর প্রতিষ্ঠানগুলো।
জানতে চাইলে মেলার আয়োজক আইএসপিএবির সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক বলেন, ‘এবার আমরা রাজধানীসহ সব বিভাগে এই মেলার আয়োজন করবো। পরবর্তী সময়ে রিমোট এরিয়া তথা প্রত্যন্ত এলাকায় মেলা করবো। আমরা চাই শহর ও গ্রাম সব জায়গায় ইন্টারনেট ছড়িয়ে পড়ুক, সবাই জানুক ইন্টারনেট কী, এটা দিয়ে কী হয়।’ তিনি জানান, আইএসপিএবি’র সদস্যসংখ্যা এক হাজার। মেলায় সব সদস্য প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে বলে তিনি জানান।
ইমদাদুল হক বলেন, ‘ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ও আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক মেলা আয়োজনে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছেন এবং উৎসাহ দিচ্ছেন। এরইমধ্যে আমরা অনেকদূর এগিয়েও গিয়েছি।’ তিনি জানান, সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলো মেলায় তাদের বিভিন্ন সেবা ও প্যাকেজে ছাড় ঘোষণা করবে, থাকবে উপহারও। অনেক প্রতিষ্ঠান কেবল মেলা উপলক্ষে প্যাকেজ তৈরি করছে।
জানা গেছে, মেলার প্রতিপাদ্য চ‚ড়ান্ত করা হয়েছেÑ ‘গ্রাম হবে শহর।’ শহরের সব নাগরিক সুবিধা ইন্টারনেটের মাধ্যমে গ্রামে পৌঁছাতে এই উদ্যোগ। মেলা দুটি ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ধাপে রাজধানীতে তিন দিনের মেলা শুরু হবে আগামি ১২ জুন, চলবে ১৪ জুন পর্যন্ত। মেলা বসবে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে। আর দ্বিতীয় ধাপে ১৫ থেকে ১৯ জুন পর্যন্ত মেলা অনুষ্ঠিত হবে বিভাগীয় শহরগুলোতে।
মেলার আয়োজকরা জানান, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত জাতীয় ইন্টারনেট মেলায় ৩০টি প্যাভিলিয়ন ও ১৬০টি স্টল থাকবে। অন্যদিকে, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, রেলস্টেশন, বাসস্টেশন, সদরঘাট টামির্নাল ও হাতিরঝিলসহ ঢাকার অন্তত ২০টি স্পটে ১ জিবিপিএস (গিগা বিটস পার সেকেন্ড) গতির ইন্টারনেট সেবা চালু করা হবে। মেলা চলাকালে মেলা প্রাঙ্গণ ও স্পটগুলোতে সবাই বিনামূল্যে উচ্চগতির ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।
মেলায় প্রতিদিন অন্তত তিনটি করে সেমিনার হওয়ার কথা রয়েছে। অন্যদিকে, কারিগরি পেশায় কর্মরতদের জন্য ১২-১৪ জুন একটি সার্টিফিকেট কোর্স অনুষ্ঠিত হবে। আর ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য থাকবে নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও সাইবার বুলিং নিয়ে ফ্রি ইন্টারনেট ক্লিনিক। এছাড়া, মেলায় এই খাতের সফল ১০ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা জানানো হবে বলে জানা গেছে।

ডিজিটাল প্রতারণার শীর্ষে রয়েছে মোবাইল ব্যাংকিং
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি ডিজিটাল প্রতারণার ঘটনা ঘটছে। হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে গ্রাহকের হাজার হাজার টাকা। প্রযুক্তিগত সুবিধার অপব্যবহার করে মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকদের প্রতারিত করতে গড়ে উঠেছে বিশাল প্রতারক চক্র। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ওই চক্রের সঙ্গে জড়িত ৩৭৪ জনকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। দেশে গড়ে প্রতিদিন অন্তত দুটি করে মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণার অভিযোগ জমা পড়ছে। বর্তমানে ওই ধরনের মামলার সংখ্যা রয়েছে ২২৫টি। নিরক্ষর ব্যক্তিরা মোবাইল ব্যাংকিং বেশি ব্যবহার করলেও প্রতারিতদের প্রায় সবাই শিক্ষিত গ্রাহক। ভুক্তভোগী ও ব্যাংকিং খাত এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ ঘটনার পাশাপাশি অপরাধ কর্মকান্ডের অর্থও লেনদেন হচ্ছে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সঙ্গে জড়িত এজেন্টের বিরুদ্ধেও নানা অভিযোগ রয়েছে। সেজন্য বিভিন্ন সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে ২৭ জন এজেন্টও গ্রেফতার হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে অবৈধ লেনদেন ও মুত্রা পাচারের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ঢাকা বিভাগে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে সবচেয়ে বেশি গ্রাহক। দেশের মোট গ্রাহকের ২৪ শতাংশই ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। ১৮ শতাংশ গ্রাহক নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে চট্টগ্রাম বিভাগ। বাকি গ্রাহক দেশের অন্যান্য অঞ্চলের বাসিন্দা। ঢাকা বিভাগেই মোবাইল ব্যাংকিং সবচেয়ে বেশি প্রতারণা হয়। আর প্রতারণার সঙ্গে জড়িতদের বড় অংশই ফরিদপুর, শরীয়তপুর, মাদারীপুর ও কুমিল্লার বাসিন্দা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তথ্যানুযায়ী অপরাধীরা অর্থ লেনদেনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করছে মোবাইল ব্যাংকিং। ১৫ ধরনের অপরাধ কর্মকাÐের অর্থ লেনদেনে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ব্যবহার চিহ্নিত করা হয়েছে। মাদক ব্যবসা, মানবপাচার, চোরাচালান, চাঁদাবাজি, হত্যা, অপহরণ, হুন্ডি, জালিয়াতি, জিনের বাদশা, হ্যালো পার্টি, প্রতারণা, মুক্তিপণ আদায়, প্রশ্নপত্র ফাঁস, প্রবাসীদের জিম্মি করে টাকা আদায় ও ধর্মভিত্তিক জঙ্গি কর্মকাÐের মতো অপরাধের ঘটনায় টাকা লেনদেনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে মোবাইল ব্যাংকিং।
সূত্র জানায়, দ্রæততম সময়ে এক স্থান হতে অন্য স্থানে টাকা পাঠানোর অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম এখন মোবাইল ব্যাংকিং। বর্তমানে এ সেবা ব্যবহার করেই মানুষ তাদের পরিবার পরিজন ও নিকটাত্মীয়ের কাছে বেশি টাকা পাঠাচ্ছে। তাছাড়া এ সেবার মাধ্যমে রেমিটেন্সের অর্থ প্রেরণ, বেতনÑভাতা ও ইউটিলিটি বিল পরিশোধ সবই উল্লেখযোগ্যহারে বাড়ছে। মূলত ব্যাংকে গিয়ে অর্থ আদান-প্রদানের ঝামেলা এড়াতে প্রতিদিনই বাড়ছে বিভিন্ন ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং সেবার গ্রাহক। একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রতারণা। গড়ে উঠছে বিভিন্ন সিন্ডিকেট চক্র। থামানো যাচ্ছে না গ্রাহক হয়রানি। এক হিসাবে দেখা গেছে, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ১ হাজার থেকে শুরু করে পাঁচ হাজার টাকার লেনদেনই বেশি। সাধারণত যারা অল্প আয়ের মানুষ এবং যারা ব্যাংকে গিয়ে অ্যাকাউন্ট খোলার মতো দক্ষ নন, তাদের একটি বড় অংশ এ ব্যাংকিং সেবার দিকে ঝুঁকছে। তাতে একবারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা লেনদেন করা যায়। তবে কেউ চাইলে একাধিক এজেন্ট বা এ্যাকাউন্টের মাধ্যমে আরো অনেক বেশি টাকা লেনদেন করতে পারে। তবে ওই লেনদেনের তেমন কোন তথ্য থাকে না। এজেন্টের মাধ্যমে করলে যার কাছে টাকা পাঠানো হয়, তার মোবাইল নম্বর ছাড়া আর কোন তথ্যই থাকে না। আর সেটার সুযোগ নিয়েই মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অবৈধ কাজে টাকা ব্যবহার হচ্ছে। ভুয়া মেসেজের মাধ্যমে এজেন্টরা যেমন টাকা দিয়ে প্রতারিত হচ্ছে, তেমনি গ্রাহকের টাকাও তুলে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে ভ‚রি ভ‚রি।
সূত্র আরো জানায়, মোবাইল ব্যাংকিংয়ে গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ করতে প্রতারকচক্র সবসময়ই তৎপর থাকে। আর হুন্ডি, মাদক ও চোরাচালানের অর্থ লেনদেনে জড়িত রয়েছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের এজেন্টরা। বিগত ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) বিকাশ, রকেটসহ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সঙ্গে জড়িত ২ হাজার ৮৮৮ জন এজেন্টের একটি তালিকা সিআইডির কাছে পাঠায়। তাদের অস্বাভাবিক লেনদেন খতিয়ে দেখতে অনুরোধ করে বিএফআইইউ। সেখান থেকে সিআইডি অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনকারী ২৫ বিকাশ এজেন্টকে চিহ্নিত করে। পরে তাদের গ্রেফতার করতে অভিযানও চালায় সিআইডি। গতবছরের জানুয়ারিতে সিআইডির অভিযানে গ্রেফতার হয় ১১ জন এজেন্ট। সিআইডি ছাড়াও ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ ও র‌্যাবের অভিযানে বিভিন্ন সময় আরো ১৬ জন এজেন্ট গ্রেফতার হয়। ২০১৫ সালের ৩ আগস্ট মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনের অভিযোগে রাজধানীর ডেমরা থেকে বিকাশের ৩ এজেন্ট গ্রেফতারের ঘটনা ছিল আলোচিত। গ্রেফতার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ৩০০ মোবাইল সিম, ৯০০ ছবি ও ৮৫০টি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র উদ্ধার করা হয়েছিল। প্রশ্নপত্র ফাঁসসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িতরা মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে অর্থ লেনদেন করতো বলে সেসময় জানিয়েছিল গোয়েন্দা পুলিশ।
সূত্র আরো জানায়, তুলনামূলকভাবে যারা অসচেতন তাদের ভুল বুঝিয়ে প্রতারণার ঘটনা ঘটছে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অন্যের টাকা হাতিয়ে নেয়ার জন্য বড় ধরনের সিন্ডিকেট চক্র সক্রিয় রয়েছে। অত্যন্ত সূ² ও দক্ষ কায়দায় তারা দেশের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের টাকা লুটে নিচ্ছে। তাদের প্রতারণার শিকার হয়েছেন অবসরে যাওয়া সরকারী চাকরিজীবী, সেনা কর্মকর্তা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর থেকে শুরু করে সুশীল সমাজের সদস্যরা পর্যন্ত।
এদিকে এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) জনসংযোগ শাখার উপকমিশনার মাসুদুর রহমান জানান, লোভ বা সুযোগের কথা বলে প্রতারকরা গ্রাহকদের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। অধিকাংশ গ্রাহকই সঠিকভাবে মোবাইল ব্যাংকিং বোঝে না। তাছাড়া নিয়মানুযায়ী টাকা লেনদেন করছে না মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টরা। তারা গ্রাহকদের তথ্য সংরক্ষণেও সচেতন না। এজেন্টদের কাছ থেকেই মূলত গ্রাহকের নম্বর সংগ্রহ করে প্রতারকরা।
অন্যদিকে এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম জানান, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে গ্রাহকের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে লেনদেনের প্রতিটি পর্যায়ে রেকর্ড থাকে। ফলে সেক্ষেত্রে অনিয়ম কিংবা সন্দেহজনক লেনদেনের ঝুঁকি নেই। বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে যাচাইয়ের মাধ্যমে সিমকার্ড নিবন্ধন করার কারণে এ্যাকাউন্টধারী গ্রাহকের পরিচয় নিশ্চিত করাও সহজ হয়েছে। কিন্তু এজেন্টের মাধ্যমেই অনিয়মের ঝুঁকি এবং সন্দেহজনক কিংবা অনিয়মের মাধ্যমে লেনদেনের ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে এজেন্টদের ওপর নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকও নিজস্ব নিয়মে নজর রাখছে। অনিয়ম পাওয়া গেলে এজেন্টের নিবন্ধন বাতিল করা হচ্ছে।
এ প্রসঙ্গে বিকাশের হেড অব কর্পোরেট কমিউনিকেশন্স শামসুদ্দিন হায়দার ডালিম জানান, বিকাশ সবাইকে সচেতন করার চেষ্টা করছে। প্রতারণা থেকে বাঁচতে বিকাশ কর্তৃপক্ষ ৪টি সতর্কতামূলক বার্তা দিচ্ছে। এসব অনুসরণ করলে প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে। ১. নিজের বিকাশ এ্যাকাউন্টের পিন নম্বর ও অ্যাকাউন্ট ব্যালান্স কখনও কাউকে বলবেন না। ২. ফোনে কেউ যদি আপনাকে ভুল করে টাকা পাঠানোর কথা বলে ফেরত চায় সন্দেহ হলে অ্যাকাউন্ট ব্যালান্স চেক করুন। ৩. কারো প্ররোচনায় লটারি জেতার মিথ্যা আশায় কোনো লেনদেন করবেন না। ৪. ফোনে শুধু কারো কথা শুনে পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে কারো নির্দেশনায় কোন নম্বর ডায়াল করবেন না বা টাকা পাঠাবেন না।


   Page 1 of 5
     তথ্য-প্রযুক্তি
করোনা আতঙ্কে ফেসবুকের অফিস বন্ধ
.............................................................................................
বিপদ থেকে বাঁচতে হোয়াটসঅ্যাপে এই ভুলগুলো এড়িয়ে চলুন
.............................................................................................
গ্রামীণফোনে প্রথম বাংলাদেশি সিইও ইয়াসির আজমান
.............................................................................................
ইন্টারনেটের উচ্চগতি নিশ্চিত করতে হবে
.............................................................................................
ফেসবুকের নতুন অ্যাপ, টাকা পাবেন ব্যবহারকারীরাও
.............................................................................................
১ মিনিটে নগদ অ্যাকাউন্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন জয়
.............................................................................................
জাকারবার্গের পোস্টে বাংলাদেশের বিজ্ঞানীদের সাফল্যের খবর
.............................................................................................
গ্রাহকদের কাছে ক্ষমা চাইল ফেসবুক
.............................................................................................
হঠাৎ ফেসবুক সার্ভার ডাউন!
.............................................................................................
ডিজিটাল লিডারশিপ তৈরির উদ্যোগ
.............................................................................................
এবার করের আওতায় আসছে ফেইসবুক-গুগল-অ্যামাজন
.............................................................................................
রোল মডেল হওয়ায় বাংলাদেশকে অনুসরণ করছে বিশ্ব : পলক
.............................................................................................
মার্কিন ভিসা পেতে লাগবে ফেসবুকের তথ্যও
.............................................................................................
দেশে শিগগিরই চালু হবে ৫-জি প্রযুক্তি
.............................................................................................
সারাদেশে ঈদের পরে ইন্টারনেট মেলা
.............................................................................................
ডিজিটাল প্রতারণার শীর্ষে রয়েছে মোবাইল ব্যাংকিং
.............................................................................................
প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রতিবন্ধীতা দূর করা সম্ভব: তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী
.............................................................................................
সরকারি প্রকল্পে থাকবে দেশি সফটওয়্যার: পলক
.............................................................................................
ইন্টারনেট থেকে ২০ হাজার খারাপ সাইট সরানো হয়েছে: মোস্তাফা জব্বার
.............................................................................................
সরকারি ওয়েবসাইটের তথ্য সকলের জন্য উন্মুক্ত: পলক
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর নামে খোলা ৭ শতাধিক ভুয়া ফেসবুক আইডি বন্ধ
.............................................................................................
মোবাইলে ৩ দিনের নিচে ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের জন্য অন্য দেশ আমাদের অনুসরণ করবে: মোস্তফা জব্বার
.............................................................................................
ফোর জি ও থ্রি জি মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ
.............................................................................................
তথ্য প্রযুক্তিতে বিশ্বে বাংলাদেশ রোল মডেল বিবেচিত হচ্ছে : মোস্তাফা জব্বার
.............................................................................................
ব্যাটারি ছাড়াই চলবে গাড়ি!
.............................................................................................
০১৩ সিরিজ চালু করলো গ্রামীণফোন
.............................................................................................
আইএসও ৯০০১: ২০১৫ সনদ পেল রবি
.............................................................................................
ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক থেকে রক্ষায় ৩ করণীয়
.............................................................................................
নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলের কার্যক্রম শুরু
.............................................................................................
দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক ৯ কোটি ছাড়াল
.............................................................................................
গুগল ক্রোম আনছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট লগইন
.............................................................................................
তথ্য-প্রযুক্তি ছাড়া কোনো পেশাতেই সফল হওয়া সম্ভব নয়: পলক
.............................................................................................
মোবাইলের কলরেট কমিয়ে ২৫ পয়সা করার দাবি
.............................................................................................
বাংলা এসএমএস বাংলা হরফেই গ্রাহকদের কাছে পাঠাতে বিটিআরসির নির্দেশ
.............................................................................................
৪ হাজার ইউনিয়নে দ্রুত গতির ইন্টারনেট এ বছরেই: পলক
.............................................................................................
মোবাইলে সর্বনিম্ন কলরেট ১০ পয়সা করার দাবি
.............................................................................................
ঘরে ঘরে ইন্টারনেট পৌঁছে দিতে সরকার বদ্ধপরিকর: মোস্তাফা জব্বার
.............................................................................................
কারিগরি ত্রুটির কারণে ইন্টারনেট বিঘ্নিত: বিটিআরসি
.............................................................................................
মোবাইল ফোনে ফোরজি ও থ্রিজি বন্ধ, চলবে টুজি
.............................................................................................
ওয়ালটনের শক্তিশালী ব্যাটারির নতুন ফোন বাজারে
.............................................................................................
আ. লীগ আবারও ক্ষমতায় এলে ফাইভ-জি সেবা: জয়
.............................................................................................
পরীক্ষামূলক ৫-জি চালু হচ্ছে কাল : জয়
.............................................................................................
জাতিসংঘের ই-গভর্নমেন্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে ১১৫ তম বাংলাদেশ
.............................................................................................
ফেসবুক নিজে সরিয়ে দেবে ভূয়া ও উস্কানিমূলক পোস্ট
.............................................................................................
মার্ক জাকারবার্গ এখন বিশ্বের তৃতীয় ধনী
.............................................................................................
তিনটি অ্যাপ সরিয়ে ফেলছে ফেসবুক
.............................................................................................
উন্নয়ন ধরে রাখতে নৌকায় ভোট দিন: পলক
.............................................................................................
মাত্র ৬ মাসে ১৩০ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ
.............................................................................................
মিথ্যা বললে ধরবে মোবাইল ফোন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : জিয়াউল হক ।
নির্বাহী সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । এম, এ হাসান : সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২,-মোবাইলঃ- ০১৭১৬-৯১১৫৭২

E-mail: provatikhoborbd@gmail.com,provatikhobor2014@gmail.com,
Web: www.dailyprovatikhobor.com

   All Right Reserved By www.dailyprovatikhobor.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop